মুজিব বর্ষে বিমানে বিশেষ ছাড়।

কালের সমাচার ডেস্ক।

মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বিমানের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে প্রতিমাসের ১৭ তারিখ বিশেষ ছাড় দেওয়া হবে।

মুজিব বর্ষ শুরুর পর পুরো বছরে এই ছাড় কার্যকর থাকবে।

১২ জুন বুধবার, সংসদ ভবনে জাতীয় সংসদের বেসামরিক বিমান পরিবহন এবং পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।

কমিটির সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে অংশ নেন বেসামরিক বিমান পরিবহন এবং পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী,

ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, মো. আসলামুল হক, কাজী ফিরোজ রশীদ, আশেক উল্লাহ রফিক, আনোয়ার হোসেন খান, শেখ তন্ময় এবং সৈয়দা রুবিনা আক্তার।

প্রসঙ্গত, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে,

সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত মুজিব বর্ষ পালন করা হবে।

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং দফতর এ উপলক্ষে বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সংসদ সচিবালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় মুজিব বর্ষ পালন উপলক্ষে কমিটি বৈঠকে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন, ট্যুরিজম বোর্ড

এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়কে একসঙ্গে কাজ করার সুপারিশ করেছে।

বৈঠকে কমিটির সভাপতি মো. আসলামুল হককে আহ্বায়ক করে ৫ সদস্যের সাব-কমিটি গঠন করা হয় মিশরীয় বিমান ভাড়ার বিষয়ে অনিয়ম ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিভিন্ন অনিয়ম খতিয়ে দেখতে।

সাব-কমিটির অন্য সদস্যরা– আশেক উল্লাহ রফিক, আনোয়ার হোসেন খান, শেখ তন্ময় এবং সৈয়দা রুবিনা আক্তার।

কমিটি সুপারিশ করে এক্সক্লুসিভ জোন তৈরি করতে যাতে, কক্সবাজার, কুয়াকাটা এবং সুন্দরবনে বিদেশি পর্যটক টানা সম্ভব হয়।